সর্বশেষ

10/recent/ticker-posts

আইপিল-এ টানা ৫ ম্যাচ হারার পর, টানা ৫ ম্যাচ জয় পাঞ্জাবের




১৪ অক্টোবর ২০২০, আইপিএলে তখন ৭ ম্যাচের মধ্যে ৬টিতে হেরে আসর থেকে বাদ পড়ার মতো অবস্থা হয় কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের। দলের অবস্থান পয়েন্ট টেবিলের একেবারে নীচে চলে আসে তারা। 


দুর্দান্ত ব্যাট করছেন লোকেশ রাহুল-ময়াঙ্ক আগরওয়ালরা ও ন্যাকলাস পুরান। বল হাতে আগুন ঝরাচ্ছেন মোহম্মদ শামি ও আরো অনেক । কিন্তু সব ম্যাচই শেষ মুহূর্তে হেরে যাচ্ছে অনিল কুম্বলের দল। সেই সময় বিরাট কোহালিকে ডেকে বলে পাঞ্জাবের অধিনায়ক লোকেশ রাহুল , তাঁরা ২০১৬ সালের ব্যাঙ্গালোরকে দেখে অনুপ্রাণিত হতে চাইছেন। তিনি বলেন যে ব্যাঙ্গালুর শুরুর ৫টি ম্যাচ হেরেও ফাইনাল খেলেছিল আরসিবি।

২৬ অক্টোবর ২০২০ কলকাতা নাইট রাইডাসের বিপক্ষে৮ উইকেটে অনেক বড় জয় তুলে নেয় রাহুলের দল। মাত্র ১২ দিনের ব্যবধানে পর পর পাঁচ ম্যাচ জিতে লিগ টেবিলের ৪ নম্বরে উঠে একেবারে ফিনিক্সের মতো উত্থান হয়েছে পাঞ্জাবের। সপ্তাহ দু’য়েক আগে যে দলের বিদায় নিশ্চিত বলে লিখে ফেলেছিলেন বহু ক্রিকেটার, ক্রিকেট প্রেমিরা সেই তারাই এখন প্লে অফের দৌড়ে অনেকের চেয়ে এগিয়ে। রাহুলদের শেষ দুই ম্যাচ রাজস্থান এবং চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে। দুই দলকে হারিয়ে প্লে অফ খেলবে পাঞ্জাব, এমনটাই এখন মনে করছেন বেশির ভাগ ক্রিকেটপ্রেমিরা।

ঠিক কী ভাবে সম্ভব হল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের এই রূপকথার উত্তানের? গাওস্করের মতো অনেকে এর পিছনে কোচ অনিল কুম্বলের হার না মানা মনোভাবের কথা বলছেন। 

প্রাক্তন অধিনায়ক সুনীল গাওস্কর বলেন, ‘‘অনিল কুম্বলের ভূমিকার কথা মনে রাখতে হবে। লড়াকু ক্রিকেটার ছিল কুম্বলে। ভাঙা চোয়াল নিয়ে বল করেছিল। সেই স্পিরিটই দেখা যাচ্ছে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের ছেলেদের মধ্যে। সেই কারণেই প্রায় ছিটকে যেতে যেতে এখন প্লে অফের দৌড়ে রয়েছে পাঞ্জাব।’’

তবে এ কথাও ঠিক যে বেশ কিছু জেতা ম্যাচ হেরেছে পাঞ্জাব। যেমন দিল্লির কাছে সুপার ওভারে হার থেকে নাইটদের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে ২ রানে হার। পাঞ্জাব দলে কোথাও যেন সেই এক্স ফ্যাক্টরের অভাব ছিল। সেই অভাবটাই বোধহয় পূর্ণ হয়েছে দলে ক্রিস গেলের অন্তর্ভুক্তিতে। দলে সুযোগ পেয়েই দুর্দান্ত হাফ সেঞ্চুরি করেন ক্যারিবিয়ান তারকা এই ইউনিভার্স বস। আর তাতেই ব্যাঙ্গালোরকে হারিয়ে দেয় পাঞ্জাব। সেই থেকেই শুরু। এর পর টানা ৫ ম্যাচ জিতেছে তারা। যার মধ্যে রয়েছে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে ২ সুপার ওভারের সেই দুর্দান্ত জয়ও।


ক্রিস গেইল ছাড়াও পাঞ্জাবের এই জয়ের পিছনে রয়েছে প্রতি ম্যাচে আলাদা ম্যাচ উইনারের উপস্থিতিও। রাহুল তো বটেই, কখনও মোহাম্মদ শামি, কখনও রবি বিষ্ণোইয়ের মতো নতুন কেউ উঠে এসেছেন নায়ক হয়ে। ব্যাটে রান করতে না পারলেও বল হাতে কার্যকরী হয়ে উঠেছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল।

এবার অপেক্ষা আর দুই ম্যাচের। টানা ৭ ম্যাচ জিতে কি পঞ্জাব পারবে প্লে অফে যেতে? পারবে কি নতুন ইতিহাস করতে? নিচে কমেন্ট করে জানাতে পারেন আপনার মতামত। সময়ের অপেক্ষায় আর লাখো ভক্ত এ ক্রিকেট প্রেমীরা।

অন্যান্য খবর নিচে

অবসান ঘটিয়ে অবশেষে  সীমিত পরিসরে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে মুখ খুলল ইসলাম ধর্মের শীর্ষ দেশ এবং মহানবী (সাঃ) এর জন্মভূমি  সৌদি আরব। 


মহানবী মুহাম্মদ (সা.)-এর বিতর্কিত ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন এবং ইসলাম ধর্মের সঙ্গে সন্ত্রাসবাদের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগের ঘটনায় ফ্রান্সের নিন্দা জানিয়েছে দেশটি। তবে এর বেশি আর কোনো প্রতিবাদ করেছে বলে জানা যায় নি।সূত্রমতে আরো জানা যায় যে, সৌদি আরবের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, বাকস্বাধীনতা এর সংস্কৃতি শ্রদ্ধা, সহনশীলতা এবং শান্তির ভিত্তিতে হওয়া উচিত; যা ঘৃণা, সহিংসতা এবং চরমপন্থার উৎপত্তি ও সহাবস্থানবিরোধী চর্চা প্রত্যাখ্যান করে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ